ছাতকে রাজস্ব বোর্ডের প্রতিনিধি টিম লাফার্জের রাজস্ব প্রদান সংক্রান্ত বিষয় তদন্তে

শেয়ার করুন

ছাতক প্রতিনিধি;
সুনামগঞ্জের ছাতকে লাফার্জ হোলসিম সিমেন্ট কারখনার রাজস্ব প্রদান সংক্রান্ত বিষয় তদন্ত করেছে রাজস্ব বোর্ডের এক প্রতিনিধি টিম। রোববার সকালে লাফার্জ হোলসিম সিমেন্ট কারখনায় এ সংক্রান্ত বিষয়ে তদন্ত করেছেন তদন্ত কমিটির প্রদান রাজস্ব বোর্ডের সদস্য জাকিয়া সুলতানাসহ কমিটির কর্মকতারা। তদন্ত কমিটির কর্মকর্তারা সকালে শুল্ক ষ্টেশনে এসে কাষ্টম কর্মকর্তাদের সাথে মত বিনিময়সহ লাফার্জের রাজস্ব সংক্রান্ত বিষয়ে আলোচনা করেন। এসময় ছাতক লাইমষ্টোন ইম্পাটার্স এন্ড সাপ্লায়ার্স গ্রুপের প্রেসিডেন্ট, ছাতক ব্যবসায়ী-শ্রমিক ঐক্য পরিষদের আহবায়ক আহমদ শাখাওয়াত সেলিম চৌধুরী, ছাতক পাথর ব্যবসায়ী সমিতির সাধারন সম্পাদক, ব্যবসায়ী-শ্রমিক ঐক্য পরিষদের সদস্য সচিব আবুল হাসান, লাইমষ্টোন ইম্পাটার্স এন্ড সাপ্লায়ার্স গ্রুপের জেনারেল সেক্রেটারী অরুন দাস, সদস্য ইয়ামিন শাহরিয়ার ইনু, সৈয়দুজ্জামান, ইসহাক আলীসহ ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ রাজস্ব বোর্ডের সদস্য, তদন্ত কমিটির প্রধান জাকিয়া সুলতানাকে ফুলের তোরা দিয়ে স্বাগত জানান। লাফার্জ হোলসিম কর্তৃক অবৈধভাবে খোলাবাজারে ক্রাশিং চুনা পাথর বিক্রি করে কোটি-কোটি টাকা সরকারের রাজস্ব ফাঁকি দেয়ার বিষয়টি তদন্ত কমিটির কাছে এসময় তুলে ধরেন ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ। তারা আরো বলেন, প্রাতিষ্ঠানিক কোন বৈধতা ছাড়াই খোলাবাজারে ক্রাশিং চুনা পাথর বিক্রি করছে লাফার্জ হোলসিম। এর ফলে এখানের ঐতিহ্যবাহী চুনাপাথর ব্যবসা ধ্বংসের পাশাপাশি কৌশলে রাজস্বও ফাঁকি দিচ্ছে লাফার্জ। বিষয়টি গুরুত্বসহকারে খতিয়ে দেখার জন্য এবং লাফার্জের বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা গ্রহনের দাবী জানান ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ। পরে তদন্ত টিম লাফার্জ হোলসিম সিমেন্ট কারখানা পরিদর্শন করেন। একটি সূত্র জানায় বিল এসেসমেন্ট না হওয়ার কারনে লাফার্জ হোলসিমকে গত মে মাস থেকে কোন শুল্কায়ন করা হয়নি। অর্থাৎ সঠিক সিস্টেম অবলম্বন না করায় লাফার্জকে চুড়ান্ত বিল প্রদান বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

Related posts

Leave a Comment