কোম্পানীগঞ্জে জনতার আর্তনাদ পাথর কোয়ারী খুলে দেওয়া হউক

শেয়ার করুন

সিলেটের কোম্পানীগঞ্জের সকল পাথর কোয়ারী গত ফেব্রুয়ারী মাস থেকে বন্ধ রয়েছে। কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায় বিকল্প কোন কর্মসংস্থান না থাকায় পাথরের সাথে সংশ্লিষ্ট সকলেই চরম দুর্ভোগে দিনাতিপাত করছেন। বেশ কয়েকদিন থেকে কোম্পানীগঞ্জসহ সিলেটের সকল পাথর কোয়ারী খুলে দেয়ার দাবিতে আন্দোলন করে আসছেন ব্যবসায়ীরা। এবার হাজারো জনতা ভাতের থালা হাতে নিয়ে মাঠে নেমেছেন কোয়ারী খুলার দাবিতে। তাদের দাবি “ভাত দে না হয় কর্মসংস্থান খুলে দে”।

১৭ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার বিকাল ৪টায় কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার পূর্ব ইসলামপুরের দয়ার বাজারে এ কর্মসূচি পালন করেন হাজারো শ্রমিক জনতা।

কর্মসূচি থেকে জনতার একটাই বাদি উত্থাপিত হয় “পাথর কোয়ারী সচল চাই শ্রমিকের কর্ম চাই”। এ সময় শ্রমিকরা তাদের দুঃখ দুর্দশার কথা বলে আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন। কান্না জড়িত কন্ঠে তারা বলেন, দীর্ঘ ছয় মাস থেকে পাথর কোয়ারী বন্ধ থাকার কারণে আমরা অনাহারে-অর্ধাহারে দিনাতিপাত করছি। পাথর কোয়ারী যদি খুলে দেয়া হয় তাহলে আমরা দু’বেলা দুমুঠো ভাত খেয়ে পরে বেঁচে থাকতে পারবো। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে আমাদের একটাই আবেদন সকল পাথর কোয়ারী খুলে দিয়ে আমাদের বেঁচে থাকার জন্য দু’বেলা দুমুঠো খাওয়ার ব্যবস্থা করবেন।

Related posts

Leave a Comment